আড়াইহাজারে আওয়ামীলীগ চায় ধারাবাহিকতা বিএনপি চায় আসনটি পুনরুদ্ধার

আড়াইহাজার নিউজ ডট কমঃ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে (নারায়ণগঞ্জ-২) আড়াইহাজার উপজেলা আসনটিতে এমপি প্রার্থীদের মধ্যে প্রচার প্রচারনা জমে উঠেছে। আসনটি গত ১০ বছর ধারে  একাধারে আওয়ামীলীগের দখলে রয়েছে। বর্তমানে সংসদ সদস্য হিসাবে রয়েছেন নজরুল ইসলাম বাবু। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী প্রয়াত বদরুজ্জামান খান খসরুকে ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন নজরুল ইসলাম বাবু। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নির্বাচনে না আসায় এবং অন্য কোন প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদন্ধীতায় ২য় বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।

দশ বছর পর বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহন করার ফলে আসনটিতে এবার বিএনপির প্রার্থী হিসাবে প্রতিদন্ধীতা করছেন তরুন নেতা নজরুল ইসলাম আজাদ। ফলে ভোটের লড়াই জমে উঠেছে।

তবে আওয়ামীলীগের দাবী এখানে লড়াইয়ের কিছু নেই। গত ১০ বছরে যে উন্নয়ন আড়াইহাজারে সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু করেছেন তাতে আড়াইহাজারের মানুষ নৌকা ছাড়া অন্য কোন প্রতীকে ভোট দিবে না। নির্বাচনের প্রচার প্রচারনায়ও এগিয়ে আছেন তারা। প্রতিটি ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগ শক্ত অবস্থানে রয়েছে বলে নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দ উল্লাস বিরাজ করছে । তাদের দাবী রেকর্ড পরিমান ভোটের ব্যবধানে এবার নৌকার বিজয় হবে।

বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম বাবু বিভিন্ন সভায় গত ১০ বছরের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বলেন, আওয়ামীলীগ মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে জানে। আজ প্রতিটি মানুষের দোড়গোরায় উন্নয়ন পৌছে দিয়েছে আওয়ামীলীগ। প্রতিটি গ্রামে গ্রামে শিক্ষার আলো পৌছে দেওয়ার জন্য নতুন নতুন স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। চোর ডাকাত মুক্ত করা হয়েছে আড়াইহাজার উপজেলাকে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলেছে বলে আজ ঘরে বসেই বিভিন্ন সেবা পাচ্ছে সাধারন মানুষ। কোন দুর্ণীতিবাজদের সন্ত্রাসদের এদেশের ক্ষমতায় আসতে দেওয়া যাবে না। আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য সকলের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।

অন্যদিকে বিএনপি প্রার্থী নজরুল ইসলাম আজাদ বলেন, আওয়ামীলীগ বিনা ভোটে জোড় করে ক্ষমতায় আছেন। এদেশের জনগন তাদের পক্ষে নেই। আর সে ভয়ে বিএনপির প্রচার প্রচারনায় বাধা দিচ্ছে তারা। বিএনপির নেতাকর্মীদের বিনা কারনে পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করা হচ্ছে। আওয়ামীলীগ আবারো জোড় করে পুলিশ বাহিনী দিযে ভোট কেন্দ্র দখল করে ক্ষমতায় আসার পায়তারা করছে। তিনি আরো বলেন, আড়াইহাজারের মানুষ বিএনপির সমর্থক। জিম্মি করে সাধারন মানুষকে জোড় পূর্বক আওয়ামীলীগে যোগদান করতে বাধ্য করা হচ্ছে। এবারের নির্বাচনে সুষ্ঠ পরিবেশ বজায় থাকলে সাধারন মানুষ ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারলে শতভাগ বিএনপির জয় হবে এবং এই আসনটি আবারো বিএনপির দখলে আসবে বলে তিনি আশাবাদী ।

এদিকে সাধারন মানুষের মনে নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে রয়েছে সংশয়। কেমন হবে নির্বাচন সেই সমালোচনা চলছে উপজেলার বিভিন্ন বাজারের চায়ের দোকানগুলোতে । তবে সবাই চান একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। কোন প্রকার সহিংসতা ছাড়াই নির্বাচন সুষ্ঠ হবে বলে সাধারন মানুষ আশাবাদী।