আড়াইহাজারে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু, ৭ সদস্য বিশিষ্ঠ তদন্ত কমিটি গঠন

আড়াইহাজার নিউজ ডট কমঃ    নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে এক পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় মৎস্য ব্যবসায়ী জসিমউদ্দিনের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই সাথে ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য ৩ জন ডাক্তারসহ ৪ স্বাস্থ্যসহকারী দিয়ে ৭ সদস্য বিশিষ্ঠ একটি তদন্ত টিম গঠন করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে। কমিটির সদস্যরা হলেন, ডাঃ হাবিব ইসমাইল ভুইয়া , ডাঃ খালেদা নাজনীন , ডাঃ মাহাবুবুল আলম ভুইয়া, নুরে আলম মোল্লা, শফিউল্লাহ, জিন্নত আলী ও সুশীল।

অপর দিকে সোমবার নিহত জসিমউদ্দিনের পিতা সুবেদ আলী বাদী হয়েছে পল্লী চিকিৎসক মফিজুল ইসলাম ও তার ভাই আব্দুল কুদ্দুসকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানায়, পূর্বকান্দি গ্রামের জসিমউদ্দিনের এলার্জি জাতীয় সমস্যায় গত রোববার বিকেলে পল্লী চিকিৎসক মফিজুল ইসলামের ফার্মেসীতে ওষুধ আনতে গেলে তার শরীরে একটি ইনজেকশন পুশ করে দেয়। ইনজেকশন পুশ করার পরপরই জসিমউদ্দিন ছটফট করতে থাকে এবং আধা ঘন্টার পর সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এ ঘটনার পর পল্লী চিকিৎসক মফিজুল ইসলাম ও তার পরিবারের সদস্যরা দোকান ও বাড়িঘর তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে নিহত জসিমউদ্দিনে পরিবারের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে কালাপাহাড়িয়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ও আড়াইহাজার থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

অভিযুক্ত মফিজুল ইসলাম ও আব্দুল কুদ্দুস কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের পূর্বকান্দি গ্রামের মোতালেব মাস্টারের ছেলে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ হাবিব ইসমাইল ভুইয়া জানান, কমিটির সদস্যরা মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ২/৩ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেওয়া হবে।